নিজস্ব প্রতিবেদক:

দুই ঘণ্টার ব্যবধানে দেশের সাত জেলায় পানিতে ডুবে ১২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা-২টা পর্যন্ত এসব ঘটনা ঘটে। এরমধ্যে কুড়িগ্রামে ৩, কিশোরগঞ্জের নিকলীতে ৩, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২, জামালপুর, মেহেরপুর, পঞ্চগড় ও নাটোরে একজন করে রয়েছে।

কুড়িগ্রাম:

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে খালার বাড়িতে বেড়াতে এসে নদীতে গোসল করতে গিয়ে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার বন্দবের ইউপির কলেজপাড়ার পাশে সোনাভরী নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলো- গাইবান্ধার সাদুল্ল্যাপুর উপজেলার কিসমত বড়বাড়ি গ্রামের অলি উল্ল্যাহর মেয়ে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী জিন্নাত খাতুন দীনা, রৌমারী সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক হায়দার আলীর ছেলে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী সিয়াম আহমেদ ও একই উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউপির কাউয়ারচর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে হামিম মিয়া। তারা আপন খালাতো ভাই-বোন।

রৌমারী থানার ওসি আবু মো. দিলওয়ার হাসান ইনাম জানান, দুপুরে তিন খালাতো ভাই-বোনসহ পাঁচজন কলেজপাড়ার পশ্চিম দিকে স্রোতহীন সোনাভরী নদীতে গোসল করতে যায়। এ সময় জিন্নাত খাতুন দীনা নদীতে ড্রেজার দিয়ে বালু তোলার ফলে গভীর জায়গাটির মধ্যে তলিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। এ সময় সিয়াম তাকে তুলতে গিয়ে সেও ডুবে যায়। পাশে থাকা হামিম দুইজনকে উদ্ধার করতে গিয়ে সেও তলিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা এসে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

কিশোরগঞ্জ: 

কিশোরগঞ্জের নিকলীতে পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে এক পরিবারের দুই শিশুসহ তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার জারইতলা ইউপির হাফসরদিয়া গ্রামে এবং দামপাড়া ইউপির কাঁঠালকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিকলী থানার ওসি মো. সামছুল আলম সিদ্দিকী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এরমধ্যে জারইতলা ইউপির হাফসরদিয়া গ্রামে পুকুরে ডুবে চাচাতো ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের নাম সায়ন ও মুন আক্তার। তাদের মধ্যে সায়ন হাফসরদিয়া গ্রামের ভূঁইয়া বাড়ির জামান ভূঁইয়ার ছেলে এবং মুন আক্তার মিলাত ভূঁইয়ার ছেলে।

এদিকে খেলতে গিয়ে বাড়ির পাশের পুকুরে সায়ন ও মুন পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

অন্যদিকে দামপাড়া ইউপির কাঁঠালকান্দি গ্রামে মারা যাওয়া শিশুটির নাম সুমাইয়া আক্তার। সে কাঁঠালকান্দি গ্রামের কাজল মিয়ার মেয়ে। বাড়ির পাশে বর্ষার পানিতে সুমাইয়া পড়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরশহরে সহপাঠীদের সঙ্গে খেলতে গিয়ে পুকুরে ডুবে লাশ হলো শামসুন্নাহার ও মিতু নামে দুই শিশু। পৌশহরের মেড্ডার নোয়াপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

শামসুন্নাহার ওই এলাকার প্রবাসী সাঈদুর রহমানের মেয়ে ও মিতু একই এলাকার নূরুল ইসলামের মেয়ে। শামসুন্নাহার মডেল গার্লস হাই স্কুলের চতুর্থ শ্রেণি ও মিতু পশ্চিম মেড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী।

জামালপুর:

জামালপুর সদর উপজেলার ইটাইল ইউপির জামতলী এলাকায় পুকুরে ডুবে আরিয়ান নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মৃত আরিয়ান একই এলাকার জাফর আলীর ছেলে।

ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান স্বপন জানান, দুপুরে শিশুদের সঙ্গে খেলা করার সময় আরিয়ান পুকুরে ডুবে যায়। পরে শিশুদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন পুকুরে নেমে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

মেহেরপুর:

মেহেরপুরের ভৈরব নদে ডুবে কালু নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। কালু মেহেরপুর শহরের খাঁপাড়ার আব্দুল মজিদের ছেলে।

সদর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, দুপুরে মায়ের সঙ্গে শহরের শেখপাড়ায় মৃত ব্যক্তিকে দেখতে যায় কালু। এ সময় কালু ভৈরব নদের ধারে খেলতে গিয়ে পড়ে যায়। পরে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পঞ্চগড়:

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় পুকুরে ডুবে সানি আকা নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউপির নারায়ণগঞ্জ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত সানি আকা একই গ্রামের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে।

নাটোর:

নাটোরের নলডাঙ্গায় বাঁশিলা গ্রামের হালতি বিলে ডুবে যুথি আক্তার নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বাঁশিলা মধ্যপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। মৃত যুথি একই এলাকার সুজন মিয়ার মেয়ে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন দেওয়ান।ডেইলি বাংলাদেশ