বিজ্ঞপ্তি
জরুরী ভিত্তিতে সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ. দেশের জনপ্রিয়  voiceofchandpur.com অনলাইন নিউজ-এ জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের প্রতিটি থানায়. একজন থানা প্রতিনিধি ও প্রতি জেলায় একজন জেলা প্রতিনিধি  নিয়োগ দেওয়া হবে। 
তাসকিনের দুর্ধর্ষ বোলিং : দুইশও করতে পারেনি মাহমুদউল্লাহ একাদশ

তাসকিনের দুর্ধর্ষ বোলিং : দুইশও করতে পারেনি মাহমুদউল্লাহ একাদশ

দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের বাইরে থাকা তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদ তার ফর্মের ধারাবাহিকতা দেখিয়ে যাচ্ছেন। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ থেকে শুরু হওয়া বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ তিন দলীয় ওয়ানডে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাট হাতে নেমে ৪৭.৩ ওভারে ১৯৬ রানে অল-আউট হয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ। যার অন্যতম কারিগর তাসিকন। এছাড়া আল-আমিন, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধরাও ভালো বল করেছেন।

টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন নাজমুল একাদশের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যাট হাতে মাহমুদউল্লাহ একাদশের পক্ষে ইনিংস শুরু করেন দুই ওপেনার লিটন দাস ও নাইম শেখ। ৩ ওভার ব্যাট করার পরই বৃষ্টিতে বন্ধ হয় খেলা। এ সময় কোনো উইকেট না হারিয়ে ১৭ রান করে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ৪২ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। পরবর্তীতে খেলা শুরু হলে, বিপদেই পড়ে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। পরের ১৩ বলে মাত্র ৪ রানে উপরের সারির তিন ব্যাটসম্যানকে হারায় তারা।

লিটন ১১ রান করে নাজমুল একাদশের পেসার তাসকিন আহমেদের ও মোমিনুল হক খালি হাতে আল-আমিন হোসেনের শিকার হন। ৯ রান করে রান আউট হন নাইম। ২১ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর চতুর্থ উইকেটে ৭৩ রানের জুটি গড়েন ইমরুল ও মাহমুদউল্লাহ। ইমরুলকে ব্যক্তিগত ৪০ রানে থামিয়ে জুটি ভাঙ্গেন নাইম হাসান। ইমরুলের বিদায়ে পরের দিকে বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান ও সাব্বির রহমান।

এর মাঝে মাহমুদউল্লাহও বিদায় নেন। ১৬০ রানে সপ্তম উইকেট হারায় মাহমুদউল্লাহ একাদশ। সোহানকে ১৪ রানে থামান অধিনায়ক শান্ত। আর মাহমুদউল্লাহ ও সাব্বিরকে বিদায় দেন মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ। মাহমুদউল্লাহ ৮২ বলে ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ৫১ রান করেন। সাব্বিরের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। স্বীকৃত ব্যাটসম্যানদের বিদায়ের পর দুই টেল-অ্যান্ডার আবু হায়দার রনি ও রাকিবুল হাসানের ছোট্ট দুটি ইনিংসের সুবাদে ২শর কাছাকাছি গিয়ে ১৫ বল বাকী থাকতে ১৯৬ রানে অল-আউট হয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ।

রনি অপরাজিত ১৪ ও রাকিবুল ১৫ রান করেন। নাজমুল একাদশের তাসকিন ৩৭ রানে-আল আমিন ৪০ রানে ও মুগ্ধ ৪৪ রানে ২টি করে উইকেট নেন। এছাড়া নাইম-সৌম্য সরকার ১টি করে উইকেট নেন। মহামারী করোনার কারণে গত মার্চ থেকে দেশের ক্রিকেট বন্ধ ছিলো। ক্রিকেটকে মাঠে ফেরাতে এটি বিসিবির ধারাবাহিক উদ্যোগের একটি বড় অংশ।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 voiceofchandpur.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET