বিজ্ঞপ্তি
জরুরী ভিত্তিতে সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ. দেশের জনপ্রিয়  voiceofchandpur.com অনলাইন নিউজ-এ জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের প্রতিটি থানায়. একজন থানা প্রতিনিধি ও প্রতি জেলায় একজন জেলা প্রতিনিধি  নিয়োগ দেওয়া হবে। 
সংবাদ শিরোনাম
নবীন সমাজ কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ এড. জিল্লুর রহমান জুয়েল চাঁদপুর প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য হিসেবে মনোনীত ! অঙ্গীকার বন্ধু সংগঠনের সম্মাননা স্মারক গ্রহণ ড্রাইভারি পেশা একটি ঝুঁকিপূর্ণ পেশা – নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান রাজরা‌জেশ্বরে চাঁদা উত্তোলনকে কেন্দ্র ক‌রে সংঘর্ষে ১৫ জন আহত। চাঁদপুর নৌ পুলিশ কর্তৃক আটক ইউপি সদস্য পারভেজ গাজী রনি। প্রধানমন্ত্রীর জাদুকরী নেতৃত্বে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ: শ ম রেজাউল করিম বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সব ষড়যন্ত্রের জবাব জনগণ দেবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী ম্যারাডোনার মৃতদেহের সঙ্গে সেলফি তোলায় চাকরি গেল! প্রবাসীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ বোয়ালখালী থানা পুলিশের বিরুদ্ধে
নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় জিডি, হাজী সেলিমের গাড়ি জব্দ

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় জিডি, হাজী সেলিমের গাড়ি জব্দ

সাংসদ হাজী সেলিমের গাড়ী থেকে বের হয়ে নৌবাহিনীর এক কর্মকতাকে মারধরের ঘটনায় ধানমন্ডি থানায় জিডি করেছেন ভুক্তভোগী নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম। এসময় নৌবাহিনীর কয়েকজন কর্মকর্তা থানায় উপস্থিত ছিলেন।

রবিবার (২৫ অক্টোবর) সন্ধ্যার পর ধানমন্ডির কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে লোকজন জমে গেলে সংসদ সদস্যের গাড়ি ফেলে মারধরকারীরা পালিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে গাড়ি ও মোটরসাইকেলটি জব্দ করে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিয়েছিল ‘সংসদ সদস্য’ স্টিকার লাগানো হাজী সেলিমের গাড়ি। এরপর নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা মোটরসাইকেল থামান এবং নিজের পরিচয় দেন। এসময় হাজী সেলিমের গাড়ী থেকে দুই জন ব্যক্তি নেমে এসে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিমকে মারধর করে। একপর্যায়ে ওই কর্মকর্তা আত্মরক্ষার চেষ্টা করেন।

পুলিশ সূত্র মতে, ঘটনার সময় সাংসদ হাজী সেলিম গাড়িতে ছিলেন না। তাঁর ছেলে ও নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন।

মারধরের কারণে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিম বেশ আহত হন। সাথে থাকা তার স্ত্রীর গায়েও হাত দেয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। ওয়াসিম তার স্ত্রীর বই কিনে মোটরসাইকেলে ফিরছিলেন। গাড়ীতে হাজী সেলিমের ছেলে ও তার নিরাপত্তাকর্মীসহ কয়েকজন ছিলেন বলে জানা যায়।

এ ঘটনায় একজন প্রত্যক্ষদর্শীর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাওয়া যায়। সেখানে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিমের মুখে রক্ত ও আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়। ভিডিওটিতে দেখা ও ধানমন্ডি থানার সামনে থাকা জব্দকৃত হাজী সেলিমের গাড়ির নম্বর ছিল ঢাকা মেট্টো– ঘ ১১-৫৭৩৬। গাড়ী চালককেও থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

সংসদ সদস্য হাজী সেলিম ওই সময় গাড়ীতে ছিলেন না। বেশ কয়েক বছর ধরে গলায় সমস্যা থাকার কারণে তার কথা বলতে সমস্যা হয়।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 voiceofchandpur.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET