নিজস্ব প্রতিনিধি: 
ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিম ও তার ছেলে ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের বাসায় তল্লাশি চালিয়ে অস্ত্র, বিদেশি মদ ও বিয়ার উদ্ধার করেছে র‌্যাব।
.

সোমবার (২৬ অক্টোবর) তল্লাশি চালানোর সময় অবৈধভাবে বাসায় মজুত রাখা বিদেশি মদ ও বিয়ার উদ্ধার করে র‌্যাব। এছাড়া তার শয়নকক্ষ থেকে বিপুল পরিমাণ ওয়াকিটকি, ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও একটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এসব উদ্ধার করা হয়।

এর আগে, গতকাল (২৫ অক্টোবর) রাতে নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধরের মামলায় ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটির ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদকে হেফাজতে নিয়েছে র‌্যাব। সোমবার দুপুরে পুরান ঢাকার বাসা থেকে তাদের র‌্যাব হেফাজতে নেয়া হয়।

হেফাজতে নেয়ার আগে ইরফানের গাড়িটি জব্দ ও তার চালককে আটক করা হয়। গতরাতের নৌ বাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় সকালে ইরফানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় ‘মারধর ও হত্যাচেষ্টা’ মামলা করেন নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা।

কলাবাগান বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ইরফানের গাড়ি মোটরসাইকেলে থাকা নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লে. ওয়াসিম আহমেদ খান ও তার স্ত্রীকে ধাক্কা দেয়। ধাক্কা সামলে ওয়াসিম গিয়ে গাড়িটির সামনে দাঁড়ালে তাকে মারধর করেন ইরফান সেলিম ও তার সহযোগিরা। পরে, রাতেই ধানমণ্ডি থানায় জিডি করেন ভুক্তভোগী। এরপর, আজ সকালে মামলা হলে হাজী সেলিমের চকবাজারের বাসায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব।