বিজ্ঞপ্তি
জরুরী ভিত্তিতে সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ. দেশের জনপ্রিয়  voiceofchandpur.com অনলাইন নিউজ-এ জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের প্রতিটি থানায়. একজন থানা প্রতিনিধি ও প্রতি জেলায় একজন জেলা প্রতিনিধি  নিয়োগ দেওয়া হবে। 
সংবাদ শিরোনাম
টিকটক দেখতে না দেয়ায় ফরিদগঞ্জে ভাইয়ের সাথে অভিমান করে বোনের আত্মহত্যার চেষ্টা মেধাবী ছাত্রদের পড়ালেখার পাশাপাশি সামাজিক কাজ করা প্রয়োজন-জনাব মাসুদ মিজি (মামুন)। তিন বছরেও শুরু হয়নি ফরিদগঞ্জ গাজীপুর মাদ্রাসার চারতলা ভবনের  কাজ ফরিদগঞ্জ হাঁসা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নানা অভিযোগের ভিত্তিতে কর্মচারি নিয়োগ পরীক্ষা স্হগিত অর্থ আত্মসাতের মামলা : মোয়াজ্জেম হোসেনকে আত্মসমর্পনের নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে আগুন, ২০ মিনিটে নিয়ন্ত্রণে হাইমচরে কৃষকদের মাঝে জীবাণুসার ও কৃষি উপকরণ বিতরণ বিপিএল ম্যাচ চলাকালীন মাহমুদউল্লাহর নামাজ আদায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য ১১ দফা নির্দেশনা বিশ্ব দরবারে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে পুলিশ : প্রধানমন্ত্রী
ফরিদগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহীদের চাপে কোণঠাসা নৌকার প্রার্থীরা

ফরিদগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহীদের চাপে কোণঠাসা নৌকার প্রার্থীরা

 

ফরিদগঞ্জ ব্যুরোঃ

ফরিদগঞ্জ ১৩ টি ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারী বুধবার। নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা প্রচার প্রচারণা শেষ করলেন প্রার্থীরা । নির্বাচন নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ততই বাড়ছে। বিরোধী দল বিএনপি নির্বাচনে প্রার্থী না দিলেও আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থীরা সুবিধাজনক স্থানে, এমনটি দেখা যাচ্ছে না।

কারণ বেশির ভাগ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন আওয়ামী লীগেরই লোকজন। এমনকি বর্তমান সাংসদ ও সাংদদের এলাকায় ও রয়েছে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী,সাথে ১৩ টি ইউনিয়নের মধ্যে ১০ টি ইউনিয়নে রয়েছে বিএনপির সমর্থিত প্রার্থী।দলীয় প্রতীক না থাকলে তারা নিজেদের পছন্দের প্রতীকে নির্বাচন করছেন।

এই বিদ্রোহী প্রার্থীরা নৌকার জন্য দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছেন। ১ টি ইউনিয়ন ছাড়া নৌকার প্রার্থীরা কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন।

নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৩ জন প্রার্থী মাঠে প্রচার-প্রচারণা শেষ করছেন।

প্রার্থীরা পথসভা, গণসংযোগ, মতবিনিময়সহ ভোটারদের দরজায় ভোট প্রার্থনা করছেন। তবে প্রতিটি ইউনিয়নে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নৌকার বিপক্ষে একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী লড়াই করছেন।

ফলে অনেক ইউনিয়নে নৌকার বিজয় নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিদ্রোহীদের প্রার্থীদের বহিষ্কার করা হলেও খুব বেশি কাজে আসেনি।

বরং অনেক স্থানে বিদ্রোহীদের চাপে প্রচার-প্রচারণায় গতি আনতে পারছেন না সরকারি দলের প্রার্থীরা।

ভিবিন্ন এলাকায় ঘুরে জানা গেছে, বিদ্রোহী প্রার্থীদের কাউকে কাউকে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতারা সমর্থন দিচ্ছেন। এতে সংঘর্ষ-সহিংসতা বাড়ার আশঙ্কা করছেন ভোটাররা।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 voiceofchandpur.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET