বিজ্ঞপ্তি
জরুরী ভিত্তিতে সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ. দেশের জনপ্রিয়  voiceofchandpur.com অনলাইন নিউজ-এ জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের প্রতিটি থানায়. একজন থানা প্রতিনিধি ও প্রতি জেলায় একজন জেলা প্রতিনিধি  নিয়োগ দেওয়া হবে। 
চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে ৭ মার্চ দিবসে আলোচনা সভা

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে ৭ মার্চ দিবসে আলোচনা সভা

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার সকালে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ মার্চের ভাষণের উপর ভিত্তি করে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পৃক্ত করে অনলাইনে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মো.মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সমাজকর্ম বিভাগের প্রভাষক আলআমিনের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা: সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল খায়ের খান, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহ্বায়ক ও ভূগোল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মোঃ মাসুদ হোসেন, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোহাম্মদ এনামুল হক।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. কানিজ ফাতেমা, রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোঃ আফসার আলী শিকদার, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোঃ এনামুল হক, ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক মোঃ জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী বলেন, ৭ মার্চ ভাষণ বাঙ্গালি জাতির মুক্তির মহাকাব্য। জাতির পিতার এই মহাকাব্যের জন্যই আমরা আজ স্বাধীন। ভাষা আন্দোলন থেকেই আমাদের স্বাধীনতার গোড়া পত্তন হয়। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করার পরও জাতির পিতার নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর না করে টালবাহানা শুরু করা হয়। ফলে আন্দোলন আরও বেগবান হয়। উত্তাল মার্চের আন্দোলন কর্মসূচীর ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ প্রদান করেন যা আজ বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ।

সভাপতির বক্তব্যে কলেজ প্রফেসর মো. মাসুদুর রহমান অধ্যক্ষ বলেন, ৭ মার্চের ভাষণে এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম – বঙ্গবন্ধুর এই বক্তব্যের মাধ্যামে স্বাধীনতা যুদ্ধের দিক নির্দেশনা রয়েছে এবং এই ভাষণের মাধ্যমেই বাঙ্গালী জাতি উজ্জীবিত হয়ে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিশ্বের দরবারে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যূদয় ঘটে।

উক্ত অনুষ্ঠানে সকল শিক্ষক কর্মচারী স্বাস্থ্যবিধি মেনে উপস্থিত ছিলেন এবং শিক্ষার্থীরা অনলাইনে সংযুক্ত ছিলো। “ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস” উদযাপন উপলক্ষ্যে ৬ ও ৭ মার্চ ২০২১ কলেজ ক্যাম্পাসে আলোকসজ্জা করা হয়। সকাল ৯:৩০ ঘটিকায় কলেজ প্রাঙ্গনে মাস ব্যাপী বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর অনলাইনে আলোকচিত্র প্রদর্শণীর উদ্বোধন করেন কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মাসুদুর রহমান। সকাল ১০:০০ টায় কলেজ অডিটোরিয়াম থেকে অনলাইনের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রদত্ত ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার করা হয়।

এছাড়াও দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে দুপুর সাড়ে ১২টায় চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অডিটোরিয়ামে ইতিহাস বিভাগ কর্তৃক সেমিনার আয়োজন করা হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মাসুদুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল খায়ের খান।

প্রভাষক আলআমিন সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোহাম্মদ এনামুল হক। সেমিনারে “ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস” এর ভাষণ এর তাৎপর্য বিষয়ক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক মোঃ সোহেল রানা।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 voiceofchandpur.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET