বিজ্ঞপ্তি
জরুরী ভিত্তিতে সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ. দেশের জনপ্রিয়  voiceofchandpur.com অনলাইন নিউজ-এ জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের প্রতিটি থানায়. একজন থানা প্রতিনিধি ও প্রতি জেলায় একজন জেলা প্রতিনিধি  নিয়োগ দেওয়া হবে। 
ফরিদগঞ্জে চাচাতো ভাইদের প্রতিহিংসার স্বীকার প্রতিবন্ধী পরিবার

ফরিদগঞ্জে চাচাতো ভাইদের প্রতিহিংসার স্বীকার প্রতিবন্ধী পরিবার

 

মামুন হোসাইনঃ

চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের চির্কা চাঁদপুর গ্রামের বেপারী বাড়ির বৃদ্ধ আব্দুল আজিজের ৬ ছেলে ও ১ মেয়ের মধ্যে ৩টি ছেলেই প্রতিবন্ধী।

প্রায় এক মাস পুর্বে তার তারেক হোসেন নামে প্রতিবন্ধী ছেলে অসুস্থ অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। ঘরে রয়েছে শারিরিক প্রতিবন্ধী দুই ছেলে শরীফ ও হেলাল উদ্দিন। প্রতিবন্ধী ছেলেসহ অন্যদের নিয়ে কোন রকমে নিরিবিলি দিনাতিপাত করতে চাইলে পারছেন না তার প্রয়াত বড়ভাইয়ের তিন ছেলের কারণে। জমি সংক্রান্ত বিরোধের কারণে আব্দুল আজিজের পরিবারকে প্রায়ই ভাতিজা আব্দুল হাই গংদের কাছে হেস্তনেস্ত হতে হয়। কয়েক মাসপুর্বে তার প্রয়াত প্রতিবন্ধী ছেলে তারেক হোসেন বেদর মারধরের শিকার হয় প্রতিপক্ষের কাছে। স্থানীয় ভাবে শালিশী বৈঠকের মাধ্যমে জমি সংক্রান্ত বিরোধ মিমাংসার জন্য সবকিছু করলেও আব্দুল আজিজকে তার প্রাপ্য জমি বুঝিয়ে দিচ্ছে না তার বড় ভাই নুরুল ইসলাম বেপারীর ছেলেরা। ফলে বাধ্য হয়ে তিনি প্রতিবন্ধী ছেলে শরীফকে সাথে নিয়ে শনিবার(১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে থানায় আসেন লিখিত অভিযোগ করতে।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ করেন। সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের চির্কা গ্রামের বেপারীর বাড়ির আব্দুল আজিজরা চার ভাই বসবাস করেন। বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে তাদের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। ফলে চলতি বছরের ৩ মার্চ স্থানীয় শালিশদাররা চার পরিবারের মধ্যে চৌহদ্দি করে প্রত্যেকের সীমানা নির্ধারণ করে দেয়।

এরমধ্যে আব্দুল আজিজ তার খরিদকৃত সম্পত্তি দেখভাল করার জন্য শালিশদাররা .৪৯ শতক জমি প্রয়াত বড় ভাই নুরুল ইসলাম বেপারীর তিন ছেলে আব্দুল হাই গংকে বুঝিয়ে দেয়ার জন্য বলে। কিন্তু গত ৬ মাসেও তারা ওই সম্পত্তির বুঝিয়ে না দিয়ে উল্টো তাদের হুমকি ধমকি দিতে থাকে। প্রতিবন্ধী পরিবারের সদস্যরা তাদের ভয়ে সর্বদা ভীত হয়ে থাকে। বিষয়টি নিয়ে তারা সালিশদারদের কাছে কাছে গেলো ও শালিশদা দের কথা শুনছে না নুরুল ইসলাম বেপারীর তিন ছেলে। এনিয়ে কিছুদিন পরপরই উভয় পরিবারের মধ্যে বিবাদ লেগে থাকে।
আব্দুল আজিজ জানান, আমি আমার বর্তমানে জীবিত দুই প্রতিবন্ধী সন্তান নিয়ে বহু কষ্টে রয়েছি। ঝামেলা এড়িয়ে নিরিবিলি থাকতে চাইলেও আমার বড় ভাই নুরুল ইসলাম বেপারীর তিন ছেলে আমাদের থাকতে দিচ্ছে না। প্রায়ই আমাদের মারতে ধরতে তেড়ে আসে। হুমকি ধমকি দেয়। শালিশদার সর্বসম্মতিক্রমে আমাকে চলাফেরার জন্য .৪৯ শতক জমি দিলেও নুরুল ইসলাম বেপারীর তিন ছেলে আমাকে তা বুঝিয়ে না দিয়ে উল্টো আমাদের সম্পত্তি দখল করে আছে। ফলে বাধ্য হয়ে থানার আশ্রয় নিয়েছি।
শালিশদাদের মধ্যে হাজী সফিক ও জসিম উদ্দিন জানান, আমরা সকলের সম্মতিক্রমে জমি সংক্রান্ত বিরোধ মিটিয়ে দিলেও নুরুল ইসলাম বেপারীর তিন ছেলে তা মানছেন না।
বিষয়টি নিয়ে নুরুল ইসলাম বেপারীর ছেলে নুরে আলম জানান, শালিশদাররা ভাগ করে দিলেও তারা তাদের অংশ বুঝে পান নি। তাই তারা ওই জমি তার চাচা আব্দুল আজিজকে বুঝিয়ে দেন নি।
এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, আব্দুল আজিজের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 voiceofchandpur.com
Desing & Developed BY DHAKATECH.NET